যৌথ পরিবার ভাঙতে পরিকল্পনা করে নিজের ছেলেদের কুপিয়ে জখম করলেন মা!

চট্টগ্রাম মহানগর

Sharing is caring!

চট্টগ্রামে দুই শিশু সন্তানকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগে তাদের মাকে গ্রেফতার করেছে আকবর শাহ থানা পুলিশ। রবিবার (২৬ মে) রাত ২ টার সময় উত্তর কাট্টলীর বিশ্বাস পাড়া থেকে নুর বেগম (২৭) নামের ঐ মাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

জানা গেছে নুর বানুর স্বামী একটি সিকিউরিটি ফোর্সে চাকরী করেন৷ দেবর ননদদের নিয়ে একটি যৌথ পরিবারে থাকেন তারা। রবিবার রাত ১ টার দিকে শোকেসের গ্লাস ভেঙ্গে তা দিয়ে প্রথমে বড় ছেলে তাওসিফের(১০) পায়ে আঘাত করেন নুর বানু। এসময় তাওসিফের ঘুম ভেঙ্গে গেলে সে ভীত হয়ে খাটের এক পাশে চলে যায়। এরপর ঐ গ্লাস দিয়েই ছোট ছেলে তাওরাতের (০১) গলার পেছন দিকে কাটতে চেষ্টা করেন নুর বেগম। এটা দেখে তাওসিফ চিৎকার করে উঠলে পাশের ঘর থেকে তার ফুফু চাচারা ছুটে এসে নুর বেগমকে আটক করেন। এসময় হাতাহাতিতে নুরবানুও আহত হন। পরবর্তিতে তারা পুলিশে খবর দিলে পুলিশ এসে মা ও দুই ছেলেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে ভর্তি করান।

এই বিষয়ে আকবর শাহ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ মহিবুর রহমান জানান, ‘নিজের ছেলেদের কুপিয়ে জখম করার অভিযোগে নুর বেগম নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। দুই ছেলে ও মা তিনজনই সামান্য আহত হওয়ায় তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ‘

তিনি আরো বলেন, ছেলেদের আহত করে পরিবারের অন্য সদস্যদের উপর দোষ চাপানোর পরিকল্পনা থেকেই এই কাজ করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে পুলিশের কাছে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন নুর বেগম। মূলত যৌথ পরিবারে বিভিন্ন সময়ে হওয়া ঝগড়া বিবাদের ক্ষোভ থেকে যৌথ পরিবার ভাঙ্গার জন্য এই কাজ করেছেন তিনি।

এই ঘটনায় নুর বেগমের স্বামী মো ওমর ফারুক বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে আকবর শাহ থানায় একটি নিয়মিত মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান আকবর শাহ থানার এই পরিদর্শক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *