রোজাই বাড়তি শক্তি দেয় আমলাকে

খেলাধুলা

Sharing is caring!

পবিত্র রমজান পালিত হচ্ছে বিশ্বজুড়ে। এদিকে শুরু হতে যাচ্ছে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ। তবে বিশ্বকাপের জন্য রোজা রাখা বন্ধ করবেন না প্রোটিয়া ওপেনার হাশিম আমলা
ক্রিকেট খেলা এমনিতেই কষ্টকর কাজ। সাড়ে সাত ঘণ্টা মাঠে থাকা তো আর চাট্টিখানি কথা নয়। তবে সেই ক্রিকেটই যদি কেউ রোজা রেখে খেলে, তবে? অনেকের জন্য ব্যাপারটা কল্পনা করাও কষ্টকর। দক্ষিণ আফ্রিকার হাশিম আমলা অবশ্য মনে করেন, রোজা রাখেন বলেই এখনো ফিট থাকতে পারছেন।

২০১২ সালের কথা। লর্ডসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৩১১ রানের এক মহাকাব্যিক ইনিংস খেলেছিলেন হাশিম আমলা। পরে জানা গেল, ইনিংসটি তিনি রোজা রেখে খেলেছেন। এবার ইংল্যান্ড বিশ্বকাপেও রোজা রেখেই ম্যাচ খেলবেন বলে জানিয়েছেন আমলা। তিনি বলেন, ‘এটা আমাকে ফিট থাকতে সাহায্য করে। আমি মনে করি, এ মাস বছরের সেরা মাস। আমার মনে হয় রোজা মানসিক ও আধ্যাত্মিকভাবে নিজেকে উন্নত করার সবচেয়ে ভালো উপায়।’

রোজা রেখে ম্যাচ খেলা হাশিম আমলার জন্য নতুন কিছু নয়। এসব ম্যাচে আমলার সাফল্যের পরিমাণটা চোখে পড়ার মতো। তবে রোজা রেখে খেললেই যে ব্যাটে রান বেশি আসে, এমনটা মনে করেন না তিনি। তাঁর কাছে ব্যাপারটা কাকতালীয়। ‘রান করা সব সময়ই গুরুত্বপূর্ণ, আমি যখনই খেলি না কেন আমি যতটুকু পারি ঠিক ততটুকুই করার চেষ্টা করি। এটা স্বাভাবিকভাবেই হয়। এমন না যে আমি জোর করে ভালো করার চেষ্টা করি।’

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে অবশ্য আমলাকে রোজা রেখে খেলতে হবে মাত্র দুটি ম্যাচ, ইংল্যান্ড আর বাংলাদেশের বিপক্ষে। তবে ঈদের দিনও ছুটি পাচ্ছেন না প্রোটিয়া এই ওপেনার। ভারতের বিপক্ষে সেদিন লড়তে হবে দক্ষিণ আফ্রিকাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *