ইউরোপজুড়ে তীব্র গরমে জনজীবনে ব্যাঘাত ঘটেছে

আন্তর্জাতিক

Sharing is caring!

তীব্র গরমে ইউরোপজুড়ে ব্যাঘাত ঘটেছে জনজীবনে।তীব্র গরমে ইতালিতে তিনজনের মৃত্যুর খবর জানা গেছে।সতর্কতা জারি করা হয়েছে স্পেনেও,সেখানে তাপমাত্রা ৪৪ ডিগ্রি ছাড়িয়ে গেছে।

২০১৯ সালকে স্মরণকালের সবচেয়ে উষ্ণতম বছর হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থা। এ অবস্থায় জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলায় ইউরোপের নেতাদের এক হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে।

স্পেনে শনিবার তাপমাত্রা ছিল ৪৩ ডিগ্রির ওপরে। অসহ্য গরমে তাই অস্থির হয়ে পড়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।গত চার দিন ধরে সেখানে এমন তাপদাহ চলছে। এ অবস্থা আরও কয়েকদিন বিরাজ করতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ।

তীব্র গরম থেকে বাঁচতে সমুদ্র তীরে এসে আশ্রয় নিয়েছেন ইতালিবাসী। খোলা সৈকতে একটু শীতল হাওয়ার আশায় ভিড় জমিয়েছেন ইতালির স্থানীয় ও ঘুরতে আসা পর্যটকরা। ইতোমধ্যে দেশটিতে তীব্র গরমে প্রাণহানির ঘটনাও ঘটেছে।

নেদারল্যান্ডেসেও প্রচণ্ড গরমে ব্যাঘাত জনজীবন। দেশটিতে তাপমাত্রা ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকলেও প্রচণ্ড গরম অনুভব হওয়ায় অতিষ্ঠ স্থানীয়রা।

জলবায়ু পরিবর্তনের কারণেই ইউরোপজুড়ে তাপ প্রবাহ বয়ে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। এ অবস্থায় জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলায় সবাইকে এক হয়ে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *