সোহেল তাজের দরজায় কড়া নাড়ার রহস্য উন্মোচন ১৮ জুলাই

ভাইরাল মতামত

Sharing is caring!

দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমেদের ছেলে ও সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজের নিজ ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল ১৫ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার )। সেখানে দেখা যায় তিনি কারও বাড়িতে কড়া নাড়ছেন। কিন্তু তার বিস্তারিত কিছু জানাননি।

রোববার (১৪ জুলাই) সন্ধ্যায় তার ভেরিফায়েড পেজে আরেকটি ভিডিও তিনি প্রকাশ করেন। সেখানে তিনি বলেন, দরজায় কড়া নাড়ানোর রহস্য জানা যাবে ১৮ জুলাই।

সোহেল তাজের ফেসবুক পেজে প্রকাশিত টিজারে দেখা যায়, তিনি একটি মাইক্রোবাসে করে কোথাও গিয়ে একটি দরজায় কড়া নাড়ছেন। আবার অন্য একটি টিজারে দেখা যায়, তিনি কিছুদূর হেঁটে গিয়ে একটি মোটরসাইকেলে চড়ে কোথাও রওনা হচ্ছেন। কখনও পাকা রাস্তা আবার কখনও কাঁচা রাস্তা পেরিয়ে একটি ভিটে মাটির ঘরের দরজায় কড়া নাড়ছেন। তবে সেই দরজায় কড়া নাড়ানোর উদ্দেশ্য ভিডিওতে দেখানো হয়নি। এর রহস্য ১৮ জুলাই এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তিনি জানাবেন।

রবিবার পোস্ট করা ভিডিওতে সোহেল তাজ বলেন, আপনাদের নিশ্চয়ই স্মরণ আছে যে আমার ফেসবুক পেজে একটি টিজার ছেড়েছিলাম। সেই টিজারে আপনাদের দরজার কড়া নাড়ছিলাম। সে সময় আমি আপনাদের বলেছিলাম, খুব শিগগিরই আপনাদেরকে জানাবো বিষয়টি। আজকে আপনাদের সামনে একটি সুখবর নিয়ে এসেছি। আমি প্রস্তুত আপনাদেরকে জানানোর জন্য। এই প্রস্তুতির অংশ হিসেবে আগামী ১৮ তারিখে একটি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিষয়বস্তুর সবকিছু তুলে ধরবো।

তিনি আরও বলেন, আমি যেই উদ্যোগই নেই না কেন, সেটা সমাজ এবং মানুষের কল্যাণে নিয়োজিত থাকবে। সমাজ এবং মানুষের কল্যাণে আমি কাজ করে যাবো। একটি সোনার বাংলা গড়ার জন্য, সোনার মানুষ তৈরি করার লক্ষ্যে আমি কাজ করে যাবো।

ওই ভিডিওটি প্রকাশ হওয়ার পর শেয়ার হয়েছে হাজারের অধিক। অনেকের মাঝেই কৌতূহল তৈরি করেছে। অনেকেই কমেন্টে লিখেছেন, ‘আপনি এগিয়ে যান। আমরা আছি আপনার সঙ্গে।

বলা হচ্ছে, এমন ফিল্মি স্টাইলে জনপ্রিয় এই নেতা একদিন হাজির হয়ে যেতে পারেন আপনার বাড়িতেও।

এর আগে গত ২০ জানুয়ারি তরুণ প্রজন্মের এই নেতা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে লিখেন- ‘coming soon… পাল্টে যাবে জীবন। কী হতে পারে? ’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *