আইসিসির সদস্য পদ হারলো জিম্বাবুয়ে

খেলাধুলা প্রচ্ছদ

Sharing is caring!

রাজনৈতিক হস্তক্ষেপের কারণে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট আইসিসির নিষেধাজ্ঞার মধ্যে পড়তে যাচ্ছে এমন গুঞ্জন অনেক দিন ধরে বাতাসে উড়ে বেড়ালেও এখন তা সত্য। আইসিসির সদস্য পদ হতে জিম্বাবুয়েকে বহিস্কার করেছে আইসিসি।

গেল মাসে সরকারের স্পোর্টস অ্যান্ড রিক্রিয়েশন কমিশন গোটা জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বোর্ড বাতিল করে। এরপর তারা একটি অন্তর্বর্তী কমিটি গঠন করে। যেটা আইসিসির নিয়মের পরিপন্থি। এতে আইসিসি ও সরকার দুই মেরুতে স্থান করে।

জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের এমন টালমাটাল অবস্থায় বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার পর লন্ডনে আইসিসির কনফারেন্সে কে দেশটির বোর্ডের প্রতিনিধিত্ব করবেন সেটা অনিশ্চিত হয়ে দাঁড়ায়।

পূর্ণাঙ্গ সদস্য দেশ হিসেবে জিম্বাবুয়ে আইসিসির কাছ থেকে বছরে ৯ মিলিয়ন পাউন্ড পায়। কিন্তু তারা অর্থনৈতিক সমস্যার দুষ্টচক্র থেকে বের হতেই পারছে না বলে প্লেয়ার,বোর্ড এবং আইসিসির মাঝে জগাখিচুড়ি তৈরি হয়ে যায়।

যদিও আইসিসি কোনো দেশের ক্রিকেট বোর্ডকে নিষিদ্ধ করলেও তাদের খেলোয়াড়দের খেলার সূচিতে কোনো পরিবর্তন আনে না। কারণ, বোর্ডের প্রশাসনিক সমস্যার কারণে খেলোয়াড়রা ভুগতে পারে না। সেক্ষেত্রে হয়তো জিম্বাবুয়ে নারী ও পুরুষ ক্রিকেট দল নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী বাছাইপর্বে খেলতে পারবে। নিষেধাজ্ঞা চলাকালিন জিম্বাবুয়ে বোর্ড কোনো অনুদান কিংবা আর্থিক সহায়তা আইসিসির কাছ থেকে পাবে না।

তবে তাদের ক্রিকেটের নির্ধারিত সূচি আইসিসি আর্থিক সহায়তায় চলবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *