কারাবন্দির পেটের ভেতর থেকে ইয়াবা উদ্ধার

অপরাধ চট্টগ্রাম মহানগর

Sharing is caring!

চট্টগ্রাম কারাগারের ভেতরে এক কারাবন্দির কাছ থেকে আবারও ইয়াবা পাওয়া গেছে। মাদক মামলার আসামি মো. ইলিয়াসের পেটের ভেতর থেকে ৪৪০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। সোমবার (২২ জুলাই) রাতে কারাগারের প্রবেশের পর দিন এসব ইয়াবা উদ্ধার করে কারা কর্তৃপক্ষ।

‘বাকলিয়া থানার একটি মাদক মামলায় রোববার রাতে আদালত থেকে কারাগারে আসেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি পেটে ইয়াবা থাকার কথা স্বীকার করেন। পরে সোমাবর সকালে তাকে মলত্যাগে বাধ্য করলে ৪৪০ পিস ইয়াবা পেট থেকে বের করা হয়।’ চট্টগ্রাম কারাগারের জেলার নাশির আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

পেটের ভেতর ইয়াবা নিয়ে কারাগারে আসা ইলিয়াসের হাজতি নম্বর ২৬/১৯। তিনি মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশের নাগরিক। বর্তমানে উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ছিলেন। তার পেটে মোট ৯ প্যাকেটে এসব ইয়াবা বের করা হয় বলে জানান জেলার।

এর আগে এ বছরের ২২ জুন চট্টগ্রাম কারাগারে ইয়াবা নিয়ে প্রবেশের সময় মুক্তা বেগম (৩৫) নামে এক নারী নিরাপত্তা তল্লাশিতে আটক হন । তিনি সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মিতু হত্যা মামলার আসামি রাঙ্গুনিয়ার ইসলামপুরের আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী। ওইদিন সকাল ১১টার সময় কারাগারের প্রধান ফটকে তল্লাশির সময় তাকে আটক করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে ২২টি ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। তিনি একটি মেয়ে শিশু নিয়ে কারাগারে প্রবেশ করছিলেন।

তারওআগে ১৫ জুন সন্ধ্যায় নগরীর কদমতলী ওভারব্রিজের ওপর থেকে কারারক্ষী সাইফুল ইসলামকে ৫০ পিস ইয়াবাসহ আটক করে কোতোয়ালী থানা পুলিশ। সাইফুল লক্ষীপুর জেলার রামগঞ্জের আবুল কাশেম পাটোয়ারীর ছেলে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাইফুল মাদকব্যবসার সাথে জড়িত বলে স্বীকার করেছেন। আটক সাইফুলের কারারক্ষী নম্বর ২৩০০৫ (চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগার)।

এর আগে ১৫ জুন নগরীর কর্ণফুলী থানার মইজ্জ্যারটেক এলাকায় একটি বাসে তল্লাশি করে সন্দেহভাজন ইয়াবা কারবারি হিসেবে নূর মোহাম্মদকে আটক করে পুলিশ। তাকে তল্লাশি করে কোমর থেকে এক হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ওইদিন সংশ্লিষ্ট আইনের মামলায় তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *