অর্ধ-বছরে চট্টগ্রাম ওয়াসার রাজস্ব আয় দেড় কোটি টাকা

ওয়াসা চট্টগ্রাম মহানগর

Sharing is caring!

ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে চট্টগ্রাম ওয়াসা অর্ধ-বছরে ১কোটি ৪৬ লাখ ৩১ হাজার ১৩২ টাকা রাজস্ব আদায় করেছে।

চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত চট্টগ্রাম নগরের বিভিন্ন এলাকা থেকে অভিযান চালিয়ে এসব রাজস্ব আদায় করতে সক্ষম হয়।চট্টগ্রাম ওয়াসার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বেগম লুৎফুন নাহারের নেতৃত্বে এসব অভিযান পরিচালনা করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বেগম লুৎফুন নাহার জানান,বকেয়া বিল আদায়, অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন, লাইসেন্সবিহীন নলকূপ ব্যবহার ঠেকাতে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, প্রতিমাসে ২০ থেকে ২৫ লাখ টাকা রাজস্ব আদায় হচ্ছে। পাশাপাশি অভিযানে অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়, ফলে পানি চুরি বন্ধ হচ্ছে। অবৈধ সংযোগ প্রদানকারীদের আইনের আওতায় আনার পাশাপাশি জরিমানাও করা হয়। এ ছাড়া লাইসেন্সবিহীন নলকূপগুলো লাইসেন্সের আওতায় এনে বাড়ানো হচ্ছে ওয়াসার আয়ের পরিধি।

আদালত সূত্র জানায়, জানুয়ারিতে ২৪ লাখ ৩১ হাজার ৯৪ টাকা আদায় ও ২৬টি পানির সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। এ ছাড়া ফেব্রুয়ারিতে ২৪ লাখ ১১ হাজার ১৫৬ টাকা ও ২১টি পানির সংযোগ বিচ্ছিন্ন, মার্চে ২৩ লাখ ২১ হাজার ৭১২ টাকা ও ২৬টি পানির সংযোগ বিচ্ছিন্ন, এপ্রিলে ২৫ লাখ ৪২ হাজার ৫৩৫ টাকা ও ২৫টি পানির সংযোগ বিচ্ছিন্ন, মে মাসে ২৪ লাখ ১১ হাজার ৬৬১ টাকা ও ২৮টি পানির সংযোগ বিচ্ছিন্ন এবং জুনে ২৪ লাখ ১২ হাজার ৯৭৪ টাকা বকেয়া আদায় ও ২৪টি পানির সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।

ওয়াসা’র বাণিজ্যিক শাখা থেকে প্রাপ্ত তথ্যমতে, আবাসিক-অনাবাসিক গ্রাহকদের কাছে বকেয়া প্রায় ৮১ কোটি টাকা।এরমধ্যে বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও আবাসিক গ্রাহকের কাছে ৬০ কোটি টাকা পাওনা রয়েছে।

ওয়াসার উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক (প্রশাসন) গোলাম হোসেন জানান, বকেয়া আদায়ে ইতোমধ্যে অভিযান জোরদার করা হয়েছে। পাশাপাশি বকেয়া বিল পরিশোধে গ্রাহকদের চূড়ান্ত নোটিশ দেওয়া হচ্ছে।নগরে বর্তমানে দৈনিক ৪২ কোটি লিটার পানির চাহিদা রয়েছে।বিপরীতে ৩৬ কোটি লিটার পানি সরবরাহ করছে ওয়াসা।

পাশাপাশি পানির চাহিদা ও সরবরাহ ঘাটতি পূরণে ওয়াসার ৩টি প্রকল্প চলমান রয়েছে। এর মধ্যে কর্ণফুলী পানি সরবরাহ প্রকল্প-২ এর কাজ শেষ হলে শতভাগ পানির চাহিদা পূরণ হবে বলে ওয়াসা দাবি করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *