কাশ্মীরদের ভোটের মাধ্যমে জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করবে:মোদি

আন্তর্জাতিক

Sharing is caring!

ভারত-শাসিত কাশ্মিরের বিশেষ স্বায়ত্তশাসন বাতিলের ফলে সেখানে নতুন যুগের সূচনা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কাশ্মিরের রাজ্য খেতাব বাতিল প্রসঙ্গে এসময় মোদি আরও বলেন, জম্মু ও কাশ্মির চিরদিন ভারত ইউনিয়নের ‘বিশেষ অঞ্চল’ থাকবে না। সেখানের সাধারণ জনগণ ভোট দিয়ে নিজেদের প্রতিনিধি নির্বাচনের সুযোগ পাবেন।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (৮ আগস্ট) রাতে কাশ্মির সংকট ও সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল নিয়ে জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে মোদি এসব কথা জানান। খবর বিজনেস টুডের।

মোদি বলেন, ৩৭০ ধারার কারণে কাশ্মির অনেক উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত হয়েছে। এই ধারার কারণে কাশ্মিরের যেসব ক্ষতি হয়েছে সেসব কখনোই আলোচনায় আসেনি। এখন থেকে জম্মু-কাশ্মির ও লাখাদে নতুন যুগের সূচনা হলো।

ভারতের সব নাগরিকের অধিকার ও দায়িত্ব সমান জানিয়ে মোদি আরও জানান, কাশ্মির সংকটে গত তিন দশকে ৪২ হাজার মানুষের প্রাণহানি হয়েছে। যা যেকারও চোখে জল এনে দেয়। ভারতের অন্যান্য প্রদেশের নারীরা যে সুযোগ ও স্বাধীনতা ভোগ করছে, কাশ্মিরের নারীরা এতদিন সেই স্বাধীনতা থেকে বঞ্চিত ছিল বলেও মন্তব্য করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।

জম্মু ও কাশ্মিরকে কেন্দ্রের নিয়ন্ত্রণে নেওয়ায় সেখানে চাকরির সুযোগ বাড়বে বলে মতামত দেন নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেন, সেখানে ভিন্ন কাজের পরিবেশ সৃষ্টি হবে। এতে যুব সমাজ উপকৃত হবে।

এদিকে, রোববার রাত থেকে কাশ্মির কার্যত যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে আছে। মোবাইল, ল্যান্ডলাইন, ইন্টারনেট নেটওয়ার্ক বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে সেখানে। তাই মোদির ভাষণ শুনতে বেতার বার্তাই কাশ্মীরিদের একমাত্র ভরসা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *