ঈদের দিন সকাল থেকেই ঝুম বৃষ্টির সম্ভবনা

জাতীয়

Sharing is caring!

ঈদের দিন সকাল থেকেই ঝুম বৃষ্টির সম্ভবনা। আগের দিন রাত থেকে টানা বৃষ্টির কারণে সারা দেশেই মুসল্লিদের ছাতা মাথায় অথবা বৃষ্টিতে ভিজেই ঈদের জামাতে অংশ নিতে হয়েছিল। ছোট ছোট ছেলেমেয়েরাও সারা দিন ছিল ঘরে বন্দি।

এবার পবিত্র ঈদুল আজহার দিনেও বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। এমন কি এই বৃষ্টি হতে পারে টানা এক সপ্তাহ ধরে। খবর বাংলাদেশ জার্নাল

আগামী সোমবার সারা দেশে ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে। ঈদের দিন নিম্নচাপের প্রভাবে চট্টগ্রাম, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দর এবং কক্সবাজার উপকূলীয় অঞ্চলে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত জারি করা হয়েছে।

আবহাওয়া অধিদফতর সূত্রে জানা যায়, উত্তর বঙ্গোপসাগর, বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গ উপকূলীয় এলাকায় অবস্থানরত নিম্নচাপটি গভীর নিম্নচাপ আকারে ভারতের ওডিশা উপকূলের দিকে এগিয়ে গেছে। ফলে শুক্রবার বৃষ্টির মাত্রা কম থাকলেও শনিবার থেকেই টানা বৃষ্টি শুরু হতে পারে। এবং সেই বৃষ্টি মঙ্গল-বুধবার পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে।

এদিকে ঈদের আগে বৃষ্টি নিয়েও চিন্তায় রয়েছেন পরিবহন সংশ্লিষ্টরা। ব্যস্ত সড়কে যানবাহন ও যাত্রীদের চাপ বেশি থাকবে। তাই কয়েক ঘণ্টার ভারী বৃষ্টি হলে বিঘ্ন ঘটতে পারে ঘরমুখী মানুষের চলাচল। তাদের মতে, ঈদের সময় যাত্রী চাপ বেশি থাকায় এমনিতেই গাড়ি কম গতিতে চলে। এর সঙ্গে বৃষ্টি যোগ হলে গাড়ি চলবে আরও ধীর গতিতে।

উৎসবের এই দিনগুলোতে বৃষ্টি যেন সব আনন্দে বাধ সাধে। কেউ ঘর থেকে বের হতে পারে না। নতুন নতুন পোশাক পরে প্রিয়জন কিংবা পরিবারের সঙ্গে সারা দিন ধরে ঘুরতে পারে না। কোরবানির মাংস বিতরণের আনন্দও মাটি হয়ে যায়। কিন্তু প্রকৃতি তার নিজ নিয়মে চলে- এটি জেনেও দেশবাসীর প্রার্থনা, অন্তত ঈদের দিনটি যেন থাকে বৃষ্টিমুক্ত, রৌদ্রজ্জ্বলকর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *