পৃথিবীর মানুষ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের বদলে যাওয়ার গল্প শুনবেঃ তথ্যমন্ত্রী

উত্তর চট্টগ্রাম প্রচ্ছদ বৃহত্তর চট্টগ্রাম

Sharing is caring!

ইমরান হোসেন:-
“জনগণ যদি বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে অব্যাহতভাবে দেশ পরিচালনার দায়িত্ব দেন তাহলে ইনশাআল্লাহ ক’দিন পর পৃথিবীর মানুষ মালয়েশিয়া কিংবা সিঙ্গাপুরের গল্প শুনবেনা,
শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের বদলে যাওয়ার গল্প শুনবে।

৩০ আগস্ট (শুক্রবার) রাঙ্গুনিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকারের তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ একথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ১৯৭৫ সালে যখন বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয় তখন বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ছিল ৭ দশমিক ৪ শতাংশ।
বঙ্গবন্ধু হত্যার দীর্ঘ ৪২ বছর পার হলেও আমরা বঙ্গবন্ধুর রেকর্ড করা সেই প্রবৃদ্ধি অতিক্রম করতে পারিনি।
২০১৬-২০১৭ অর্থবছরে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ সেটি অতিক্রম করতে পেরেছে। বর্তমানে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ৮ শতাংশের বেশি।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু যখন যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশকে পুনঃগঠন করে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন তখনই তাঁকে হত্যা করা হয়েছে।
যে বছর বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয় সেই বছর ২৬ হাজার মেট্টিক টন খাদ্যশস্য অতিরিক্ত উৎপাদন হয়েছিলো, তিনি ক’দিন পরেই তা ঘোষণা করতেন।
কিন্তু তাকে সেই সুযোগ দেয়নি। খাদ্য ঘাটতি কাটিয়ে ও যুদ্ধ বিধ্বস্ততা কাটিয়ে বাংলাদেশ যখন অর্থনৈতিক ভাবে এগিয়ে যাচ্ছিলো তখনই তাকে হত্যা করা হয়।
বঙ্গবন্ধু যদি হত্যাকাণ্ডের স্বীকার না হতেন তবে মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর কিংবা দক্ষিণ কোরিয়ার অনেক আগেই উন্নত দেশের কাতারে নাম লেখাতে পারতো বাংলাদেশ।

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন দেখেছিলেন একটি ক্ষুধা মুক্ত, দারিদ্র্য মুক্ত বাংলাদেশ রচনা করে বাংলাদেশকে উন্নত রাষ্ট্রে রুপান্তরিত করতে।
বঙ্গবন্ধুর সেই স্বপ্ন পূরণের পথে আজকে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অদম্য গতিতে এগিয়ে চলেছে বাংলাদেশ।
গ্রাম বদলে গেছে, শহর বদলে গেছে। যেই ছেলেটি দশ বছর আগে বিদেশ গিয়েছে, সে যদি এখন দেশে আসে তবে সে নিজের গ্রাম চিনতে পারবে না।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার শামসুল আলম তালুকদারের সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাসুদুর রহমান।

উক্ত সভায় বক্তব্য দেন উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ নেতা জহির আহমদ চৌধুরী, শাহজাহান সিকদার, মুহাম্মদ আলী শাহ, বেদারুল আলম চৌধুরী বেদার,
স্বজন কুমার তালুকদার, আবুল কাশেম চিশতি, কামরুল ইসলাম চৌধুরী, ইদ্রিছ আজগর, সাদেকুন নুর সিকদার ও উপজেলা যুবলীগ সভাপতি আরজু সিকদার।

সভায় অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক ডা. মোহাম্মদ সেলিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আকতার হোসেন খাঁন, মুজিবুল ইসলাম সরফী, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক জসিম উদ্দিন, প্রচার সম্পাদক নিজাম উদ্দিন বাদশা, কেন্দ্রীয় যুবলীগ সদস্য আলহাজ্ব শেখ ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী, পৌরসভা আওয়ামীলীগ সভাপতি মাস্টার আসলাম খাঁন, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি শামসুদ্দোহা সিকদার আরজু, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইউনুচ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি নাছির উদ্দিন রিয়াজ, ছাত্রলীগ সভাপতি নুরুল আলম, তাঁতীলীগ এর আহবায়ক মোরশেদ তালুকদার প্রমুখ।

তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, “বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার রুচিশীল নেতেৃত্বে দেশ বদলে গেছে। ইতিমধ্যেই শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ক্ষুধামুক্ত হয়েছে বাংলাদেশ। বস্ত্রের সমস্যাও সমাধান হয়েছে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আর বাসস্থান ছাড়া এ-দেশে এখন কোনো মানুষ নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *