শাহজালালে কোটি টাকার বিদেশি সিগারেট,ওষুধ ও মোবাইল জব্দ

সারাদেশ

Sharing is caring!

হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিপুল পরিমাণ বিদেশি সিগারেট, মোবাইল ও ওষুধ আটক করেছে ঢাকা কাস্টমস হাউজের প্রিভেনটিভ ইউনিট। এসব পণ্যের বাজারমূল্য এক কোটি ১৪ লাখ টাকারও বেশি।

রোববার (৮ সেপ্টেম্বর) রাতে ঢাকা কাস্টমস হাউসের সহকারী কমিশনার (প্রিভেনটিভ) মো. সাজ্জাদ হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

কাস্টমস হাউসের সহকারী কমিশনার (প্রিভেনটিভ) মো.সাজ্জাদ হোসেন জানান, গোপন সংবাদে, শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে বিপুল পরিমাণ সিগারেট, মোবাইল ফোন ও ওষুধসহ বিভিন্ন শুল্ক আরোপযোগ্য পণ্য চোরাচালানের মাধ্যমে পাচার হবে। ওই তথ্যের ভিত্তিতে প্রিভেনটিভ টিম বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থান নিয়ে নজরদারি করতে থাকে। তল্লাশির এক পর্যায়ে দুপুরে বিমান বন্দরের লস্ট অ্যান্ড ফান্ডের অভিযোগ ডেস্কের সামনে পরিত্যক্ত অবস্থায় বেশ কিছু কার্টন পাওয়া যায়।

সাজ্জাদ হোসেন আরও জানান, কার্টনগুলো স্ক্যান করে সিগারেট, মেবাইল ফোন ও ওষুধসহ বিভিন্ন পণ্যের উপস্থিতি পাওয়া যায়। পরে বিভিন্ন সংস্থার উপস্থিতিতে কাস্টমস হলে ছোট-বড় মোট ৩০টি কার্টন খুলে ইনভেন্ট্রি করা হয়। এসময় বেনসন অ্যান্ড হেজেজ ও ইজি ব্র্যান্ডের ৫৭০ কার্টন (১১ ৪০ হাজার শলাকা) সিগারেট, বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ৫১টি মোবাইল সেট, ৬৬ পিস থ্রিপিস, ৩৫০ পিস টুপিস, ২০ পিস ওয়ান পিস, পাঁচটি ল্যাপটপ, ১৮ কেজি মেশিনারি পার্টস ও আমদানি নিয়ন্ত্রিত বিপুল পরিমাণ ওষুধ পাওয়া যায়। এগুলোর বাজার মূল্য প্রায় ৮৪ লাখ ৭৮ হাজার ৫০০ টাকা।

এদিকে, বিকেলে ৪ নম্বর কনভেয়ার বেল্ট থেকে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের ইকে৬৮৬ ফ্লাইটের মাধ্যমে আসা একটি পরিত্যক্ত লাগেজ থেকে বিপুল পরিমাণ আমদানি নিয়ন্ত্রিত ওষুধ আটক করা হয়। এগুলোর মূল্য প্রায় ৩০ লাখ টাকা।

আটক পণ্যগুলোর বিষয়ে কাস্টমস আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলেও তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *