টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুইজন রোহিঙ্গাসহ তিন যুবক নিহত

কক্সবাজার বৃহত্তর চট্টগ্রাম

Sharing is caring!

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুইজন রোহিঙ্গাসহ তিন যুবক নিহত হয়েছেন। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে তিনটি এলজি, ৬ রাউন্ড কার্তুজ ও ৮ রাউন্ড খালি খোসা উদ্ধার করা হয়।

বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর পাহাড়ি ঢালা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ।

নিহতরা হলেন- উখিয়ার বালুখালী ১৭নং ক্যাম্পের রোহিঙ্গা ফজল আহমদের ছেলে মোহাম্মদ জামিল (২০), একই ক্যাম্পের নবী হোসেনের ছেলে আসমত উল্লাহ (২১) ও টেকনাফ বাহারছড়া ইউনিয়নের শাপলাপুর নতুন পাড়া এলাকার মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে মোহাম্মদ রফিক (২৪)।

ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, ওই যুবকদের আটকের পর তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর ঢালা নামক এলাকায় অস্ত্র ও চোরাইপণ্য উদ্ধার অভিযানে গেলে আগে থেকে ওৎপেতে থাকা তাদের সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে এ তিন যুবক গুলিবিদ্ধ হন।

পরে তাদের উদ্ধার করে টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতাল ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি আরও জানান, বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় পুলিশের এএসআই হাবিব উল্লাহ, কনস্টেবল রাকিবুল ও দেলোয়ার আহত হয়েছে। তাদের টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

নিহত তিনজনের বিরুদ্ধে অপহরণ, হত্যা ও চুরির অভিযোগ ছিল। নিহতদের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। এ ব্যাপারে টেকনাফ থানায় পৃথক তিনটি মামলা করা হয়েছে’ জানান ওসি প্রদীপ কুমার দাশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *