প্রধানমন্ত্রীকে হুমকি, গিয়াস কাদেরের বিচার শুরু

জাতীয়

Sharing is caring!

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকির অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা গিয়াসউদ্দিন কাদের (গিকা) চৌধুরীর বিচার শুরুর আদেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে শুনানির সময় আদালতে হাজির না থাকায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানাও জারি করেছেন আদালত।

বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রামের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শহীদুল্লাহ কায়সার এই আদেশ দিয়েছেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অতিরিক্ত জেলা পিপি সমীর দাশগুপ্ত বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে মানহানিকর বক্তব্য ও হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগে দণ্ডবিধির ৫০৫ (এ), ৫০৬ ও ১৫৩ ধারায় চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন মুহুরীর দায়ের করা মামলায় গিয়াস কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দিয়েছেন আদালত। ২৮ অক্টোবর সাক্ষ্যগ্রহণের সময় নির্ধারণ করেছেন আদালত। অভিযোগ গঠনের শুনানিতে একমাত্র আসামি গিয়াস কাদের উপস্থিত না থাকায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে।’

গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরী বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি। তিনি একাত্তরে যুদ্ধাপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীর ছোট ভাই।

সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ২০১৮ সালের ২৯ মে চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে এক আলোচনা সভায় গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আপনার বাবার চেয়েও আপনার অবস্থা খারাপ হবে। আপনার বাবার মৃত্যুর পর যেমন ইন্নালিল্লাহ পড়ার লোক ছিল না, আপনার পরিণতি তার চেয়েও খারাপ হবে।’

প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি দিয়ে বক্তব্য দেওয়া, সেই বক্তব্য গণমাধ্যমে প্রকাশ এবং উসকানি দেওয়ার অভিযোগে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে পাঁচটি, ফটিকছড়ি থানায় একটি এবং মহানগর হাকিম আদালতে দুটি মামলা দায়ের হয়েছিল।

এসব মামলায় আত্মসমর্পণ করার পর ২০১৮ সালের ২২ নভেম্বর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছিল। গত মে মাসে তিনি জামিনে মুক্তি পান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *