বাসায় আটকে দেহ ব্যবসায় বাধ্য করায় নারীসহ গ্রেপ্তার ৩

অপরাধ চট্টগ্রাম মহানগর

Sharing is caring!

বাকলিয়ায় গার্মেন্টসে চাকরি দেয়ার প্রলোভনে নারীকে অবরুদ্ধ করে দেহব্যবসা করতে বাধ্য করায় নারীসহ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ সময় ভিকটিম নারীকেও উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন মো.তালেব (৬৫), মো.আব্দুল কাদের (২৩), রুবিনা আক্তার (২০)।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বাকলিয়ার কল্পলোক আবাসিকের সামনে ৫ নম্বর ব্রিজ এলাকায় পুলিশ অবস্থান নিলে এ অনৈতিক কাজের মৌখিক অভিযোগ আসে। ওই তথ্যের ভিত্তিতে বাকলিয়ার রাজাখালীর একটি ৪ তলা ভবনে অভিযান চালিয়ে তিন অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাত আড়াইটায় পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালানোর চেষ্টা করলে পুলিশ তাদের নিজ হেফাজতে নেয়।

জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃত অভিযুক্তরা জানায়, ভিকটিম গ্রেপ্তারকৃত রুবিনার পূর্ব পরিচিত। তাকে গার্মেন্টসে চাকরি দেয়ার কথা বলে ওই বাসায় নিয়ে আসে। পরে আটকে রেখে দেহব্যবসায় জড়িত হতে বাধ্য করে রুবিনাসহ অন্য দুইজনকে।

বাকলিয়া থানার ইনচার্জ মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন বলেন, ‘অভিযুক্তরা বাসাটিকে পতিতালয় হিসেবে ব্যবহার করেছিলো। ভিকটিম নারীকে অবরুদ্ধ করে তাকে দেহব্যবসায় বাধ্য করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে মানব পাচার আইনে মামলা দায়ের করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *