ভিসির সাক্ষাৎ পেশাগত কারণে নয়, এটা ব্যক্তিগত: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

জাতীয়

Sharing is caring!

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের সঙ্গে ঙসৌজন্য সাক্ষাৎ’ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম। ছাত্রলীগকে চাঁদা দেওয়ার প্রসঙ্গ নিয়ে বিতর্কের জের ধরে এই উপাচার্যের পদত্যাগের দাবি উঠেছে। ধারণা করা হচ্ছে, সেসব নিয়েই সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে আলাপ করেছেন উপাচার্য। তবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল জানিয়েছেন, ভিসি সৌজন্য সাক্ষাতের উদ্দেশেই তার সঙ্গে দেখা করেছেন। এটা পেশাগত কোনো কারণে নয়।

বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিকাল তিনটার দিকে ব্যক্তিগত সহকারী নিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ঢোকেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপচার্য ফারজানা ইসলাম। এসময় প্রবেশমুখে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের কারণ জানতে চাইলে সাংবাদিকদের তিনি জানান ‘ব্যক্তিগত কারণেই’ দেখা করতে এসেছেন।

এর প্রায় ৩০ মিনিট পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কক্ষ থেকে বের হয়ে আসেন জাবি ভিসি। এসময় আবার বৈঠকে আলোচনার বিষয় জানতে চাইলে প্রশ্নের জবাব এড়িয়ে যান উপাচার্য। ছাত্রলীগকে চাঁদা দেওয়া এবং তাকে নিয়ে নানা বিতর্কের পরিপ্রেক্ষিতে তার পদত্যাগের যে গুঞ্জন উঠেছে, সে প্রসঙ্গে প্রশ্নের জবাবও এড়িয়ে যান তিনি।

এ প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ব্যক্তিগত কারণে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে এসেছেন। পেশাগত কোনও কারণে নয়।’

তিনি আরও বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন উপাচার্য হিসেবে নানা কারণে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে আসতে পারেন। তবে তার পদত্যাগ নিয়ে যে প্রশ্ন চারিদিকে উঠেছে, সে প্রসঙ্গে কোনো আলোচনা হয়নি। আর এ প্রসঙ্গ নিয়ে আমার সঙ্গে আলোচনারও কিছু নেই।’

উল্লেখ্য, ছাত্রলীগকে চাঁদা দেওয়া নিয়ে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের পদত্যাগের গুঞ্জন রয়েছে বিভিন্ন মহলে। এর আগে এ ঘটনায় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে অব্যাহতি নেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *