সুশাসন প্রতিষ্ঠার জন্যই শুদ্ধি অভিযান: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

জাতীয়

Sharing is caring!

সরকার কিংবা দলের জনপ্রিয়তা পেতে নয়, সুশাসন প্রতিষ্ঠার জন্যই শুদ্ধি অভিযান চালানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

সোমবার (২৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

এ অভিযানে ছোট থেকে বড়, কোনো পর্যায়ের অপরাধীই পার পাবেনা। যাতে তারা দেশ ছেড়ে পালাতে না পারে সেজন্য বিমান বন্দরসহ সকল বর্ডারে তাদের নামের তালিকাও পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

মন্ত্রী বলেন, দুর্নীতি, মাদক, টেন্ডারবাজি, ঘুষ বাণিজ্য বন্ধেই সরকার এ পদক্ষেপ নিয়েছে। যতদিন পর্যন্ত এসব নির্মূল না হবে ততদিন অভিযান চলবে। আর এর সংগে জড়িত সকল পর্যায়ের অপরাধীই আইনের আওতায় আসবে। শুধু ঢাকা কেন্দ্রিকই নয়, দেশের যেখানেই এই অপরাধের প্রমাণ মিলবে সেখানেই অভিযান চলবে। পালিয়ে থাকার কোনো উপায় থাকবেনা। বিমান বন্দরসহ সকল বর্ডারে অপরাধীদের তালিকা পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

বিমান বন্দরে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকা সত্ত্বেও ক্যাসিনো সরঞ্জাম কীভাবে বাংলাদেশে প্রবেশ করলো? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, হয়তো মেশিনগুলো পার্ট পার্ট করে আনা হতে পারে। এখন তদন্ত চলছে, প্রতিবেদন আসার পরেই বলা যাবে এগুলো কিভাবে আনা হলো।

এতোদিন ধরে চলে আসা মদ, জুয়ার আসর সম্পর্কে সরকার অবগত ছিলো কিনা অপর এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, যখনই সঠিক প্রমাণ এসেছে আইন শৃংখলা বাহিনীর হাতে তখনই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, শুধু দলেই নয়, অনেক সংসদ সদস্য রয়েছেন, যাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতি সন্ত্রাসের প্রমাণ এসেছে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার নজির রয়েছে। সরকার চায় সুশাসন প্রতিষ্ঠা করতে।

শুদ্ধি অভিযান নিয়ে সম্প্রতি ব্রিটিশ সংবাদ সংস্থা- বিবিসির এক প্রতিবেদনের জবাব দিতে গিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, সরকারের জনপ্রিয়তায় বিন্দুমাত্র ঘাটতি নাই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কতটা জনপ্রিয় তা বিশ্বও জানে, এ অভিযান দুর্নীতির বিরুদ্ধে, মাদক, জুয়ার বিরুদ্ধে। এসব দূর করে সুশাসন প্রতিষ্ঠার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *