দুর্নীতিবিরোধী অভিযান চলবে: প্রধানমন্ত্রী

Uncategorized

Sharing is caring!

দুর্নীতিবিরোধী অভিযানে কেউ অখুশি হলেও কিছু করার নেই বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘দুর্নীতির কারণে সমাজে বৈষম্যের সৃষ্টি হচ্ছে। দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকার কারণে দল ও সমাজে যাতে ক্ষতিকর প্রভাব না পড়ে সেজন্য দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান। এ অভিযান চলছে এবং চলবে।’

রোববার (২৯ সেপ্টেম্বর) নিউইয়র্কে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন। জাতিসংঘের ৭৪ তম অধিবেশন শেষে দেশে ফেরার আগে এ সংবাদ সম্মেলন করেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘প্রকল্প প্রস্তুতি থেকে শুরু করে প্রকল্পের কাজ পাওয়ার জন্য অর্থ বিতরণের সুযোগ নিয়ে কিছু লোক বিপুল সম্পদের মালিক বনে যাচ্ছে। এই অর্থ চটের বস্তাতেও লুকিয়ে রাখা হচ্ছে এবং ওয়ান ইলেভেনের পট পরিবর্তনের পর আমরা এটা দেখেছি।’

ওয়ান ইলেভেনের মত ঘটনা আর পুনরাবৃত্তি হবে না জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এটা বলাই যায়, ওয়ান ইলেভেন পুনরায় ঘটবে না। যদি কোন অনিয়ম থেকে থাকে, আমি ব্যবস্থা নেব এবং সে যেই হোক না কেন, এমনকি তারা আমার দলের হলেও। যদি আমি দুর্নীতিবাজদের শাস্তি দিতে চাই, আমার ঘর থেকেই তা আগে শুরু করতে হবে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘হঠাৎ করে যে সম্পদ আসে তা দেখানো কিছু মানুষের স্বভাব। আমাদের সমাজের এই অংশটিকে আঘাত করতে হবে।’

সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এটা যে আরও কত দূর যাবে, সেটা আপনারা অপেক্ষা করেন এবং দেখেন। তবে এটা যখন ধরেছি, ভালোভাবেই ধরেছি। কাজেই এটা অব্যাহত থাকবে, এটুকু আশ্বস্ত করতে পারি।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কিছু লোক অভিযানের কারণে আমার ওপর অখুশি, কিন্তু, আমি এটার পরোয়া করি না কারণ আমার ক্ষমতা এবং সম্পদের প্রতি কোন মোহ নেই।’

রোববার বাংলাদেশ সময় রাত প্রায় সাড়ে তিনটার দিকে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭৪তম অধিবেশন উপলক্ষে এ সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন স্বাগত বক্তৃতা করেন এবং প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন। জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী মিশনে অনুষ্ঠিত এ সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন প্রধানমন্ত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *