জিসানকে দ্রুত দেশে ফিরিয়ে আনা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

জাতীয়

Sharing is caring!

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে গ্রেফতার তালিকাভুক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসানকে দ্রুত দেশে ফিরে আনা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

তিনি বলেন, জিসান ইন্টারপোলের তালিকায় থাকা একজন শীর্ষ সন্ত্রাসী। তাকে শিগগিরই দেশে ফিরিয়ে আনা হবে।

শুক্রবার (৪ অক্টোবর) সন্ধ্যায় রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে শারদীয় দুর্গোৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। সমাজকল্যাণ সংঘ নামের সনাতন ধর্মাবলম্বীদের একটি সংগঠনের আয়োজনে উৎসবের উদ্বোধন করেন কবি নির্মলেন্দু গুণ।

অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ১৫ বছর আগেই ইন্টারপোলে আমরা জিসানের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়েছিলাম। সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকার তাকে আটক করে আমাদের জানিয়েছে। তাকে দ্রুত কিভাবে, কী পদ্ধতিতে ফিরিয়ে আনা যায়— সে বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। আমরা আশা করছি, খুব দ্রুতই তাকে ফিরে দেশে ফিরিয়ে আনতে পারব।

জিসানের সঙ্গে ক্যাসিনোর সংশ্লিষ্টতার বিষয়ে জানতে চাইলে আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, ক্যাসিনো ব্যবসা না টেন্ডার ব্যবসা— সেটা আমাদের কাছে মুখ্য নয়। জিসান শীর্ষ সন্ত্রাসী, এ কারণে তাকে আমরা ফিরিয়ে আনব। সে আর কীসের কীসের সঙ্গে জড়িত, তা খতিয়ে দেখব। তবে তাকে ফিরিয়ে আনতে সব প্রক্রিয়া আমরা শুরু করছি‌।

চিহ্নিত ও দণ্ডিত অপরাধীদের যারা দেশের বাইরে পালিয়ে আছেন, তাদের বিষয়ে কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে— জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, পালিয়ে যাওয়ার প্রবণতা তো আগে থেকেই রয়েছে। যেমন— বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীরা পালিয়েছিল। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলাকারীদেরও অনেকে পালিয়েছেন। তাদের ফিরিয়ে আনতে আমরা কাজ করছি। যাকে যেখান থেকে ফিরিয়ে আনতে যে ব্যবস্থা প্রয়োজন, সরকারিভাবে তো বটেই, অন্য বিভিন্ন চ্যানেলেও আমরা সে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ, অপরাধীদের সবাইকে দেশে ফিরিয়ে আনব এবং দেশের আইন অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের উদ্দেশে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ সনাতন ধর্মাবলম্বীদের একটি নিরাপদ স্থান। হাজার বছরের কৃষ্টি এটা। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অসম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার জন্য যে স্বপ্ন দেখেছিলেন, তার সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাজ করে যাচ্ছেন। আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর প্রতিবছরই পূজা মণ্ডপের সংখ্যা বাড়ছে বলে জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *