ভারত-বাংলাদেশের সম্পর্ক বিশ্বের কাছে দৃষ্টান্ত

জাতীয়

Sharing is caring!

নয়াদিল্লির হায়দরাবাদ হাউজে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দ্বিপাক্ষিক বৈঠক শেষ হয়েছে। বৈঠক শেষে তারা যৌথভাবে তিনটি যৌথ উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেন এবং শিক্ষা, সংস্কৃতি ও পানিসম্পদ বিষয়ে ছয়টি সমঝোতা স্মারক বিনিময় প্রত্যক্ষ করেন।

শনিবার (৫ অক্টোবর) বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ১১টার দিকে শুরু হয় এই দ্বিপাক্ষিক বৈঠক। বৈঠক শেষে পৌনে ২টার দিকে সমাপনী বক্তব্য রাখেন দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী।

সমাপনী বক্তব্যে শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ-ভারতের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক বিশ্বে দৃষ্টান্ত হিসেবে পরিগণিত হচ্ছে। আমি বিশ্বাস করি, এই সহযোগিতা ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।

একই মত দিয়ে নতুন এই যৌথ উন্নয়ন প্রকল্প দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক বাড়িতে তুলবে এবং দিন দিন আরও উজ্জ্বল হবে বলে উল্লেখ করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তিনটি যৌথ উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেন দুই প্রধানমন্ত্রী। এর মধ্যে রয়েছে এলপিজি আমদানি ও বাংলাদেশ-ইন্ডিয়া প্রফেশনাল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট নির্মাণ প্রকল্প।

এর আগে, শেখ হাসিনা হায়দরাবাদ হাউজে পৌঁছালে তাকে স্বাগত জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। পরে তারা দু’জন একান্ত বৈঠকে বসেন। বৈঠনে দ্বিপাক্ষিক বিভিন্ন বিষয় স্থান পায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *