পর্তুগালে সাধারন নির্বাচন, এগিয়ে আছে সমাজতান্ত্রিক দল

আন্তর্জাতিক

Sharing is caring!

পর্তুগালের সাধারন নির্বাচনে ভোট গ্রহণ চলছে।

রোববার (৬ অক্টোবর) এখন পর্যন্ত পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ভোটে এগিয়ে আছে বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বাধীন সমাজতান্ত্রিক দল। খবরে জানিয়েছে বিবিসি।

পর্তুগালের ২৩০ আসন বিশিষ্ট সংসদের নিয়ন্ত্রণ কোন দলের হাতে থাকবে তা নির্ধারনের জন্য প্রায় এক কোটি দশ লাখ ভোটার ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাতটায় ভোটগ্রহণ শেষ হবে।

বিবিসি জানিয়েছে, ভোটের চলমান যে পরিস্থিতি তাতে সমাজতান্ত্রিক দল নিঃসন্দেহে অন্য যে কোন দলের চেয়ে বেশি ভোট পাবে। কিন্তু তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী মধ্যপন্থি সোশ্যাল ডেমোক্রেটসদের টপকে তারা সংসদে সংখ্যাগরিষ্ঠ আসন পাবে কি না? সে ব্যাপারে এখনও নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না।

এর আগে, ২০১৫ সালের নির্বাচনে সোশ্যাল ডেমোক্রেটসরা ভোটে এগিয়ে থেকেও সরকার গঠন করতে পারেনি। সে সময় সমাজতান্ত্রিক দল অন্য কিছু ছোট ছোট বাম দলকে সাথে নিয়ে কোয়ালিশন সরকার গঠন করে।

উল্লেখ করা যায় যে, তারপর থেকেই দেশটির অর্থনীতি ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের (ইইউ) গড়পড়তা অবস্থা থেকে উন্নয়নের পথে যাত্রা শুরু করেছে। দেশটির জাতীয় বাজেটে ঘাটতি কমে এসেছে। আগের সোশ্যাল ডেমোক্রেটস সরকার যেখানে দেনার দায়ে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন (ইইউ) ও ইন্টারন্যাশনাল মনিটরি ফান্ড (আইএমএফ) থেকে বেইল আউট হয়ে গিয়েছিল।

যদিও, বিরোধীদের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে ইউরোজোনের বাজেটে উপরে থাকার কৌশল হিসেবে সমাজতান্ত্রিক সরকার যে বিনিয়োগ সংকোচন নীতি গ্রহণ করেছে। তা আসলে কোন উপকারী ভূমিকা পালন করতে ব্যর্থ হয়েছে।

যদিও সমাজতান্ত্রিক দলের জনপ্রিয়তায় কিছুটা ভাটা পড়েছে বিভিন্ন স্ক্যান্ডাল ও অপপ্রচারের কারণে। তাদের বিরুদ্ধে স্বজনপ্রীতি এবং সামরিক ব্যারাক থেকে অস্ত্র লুটের অভিযোগ রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *