ক্যাসিনো কাণ্ডে পেছাবে না বিপিএল

খেলাধুলা

Sharing is caring!

দেশে ক্যাসিনো বিরোধী চলমান অভিযানে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কারো কারো সম্পৃক্ততা ধরা পড়া ও ব্যবস্থা নেওয়ার পর বোর্ডের ক্রিকেট অপারেশন্স চেয়ারম্যান আকরাম খান জানালেন, ক্যাসিনো কাণ্ডে আটকাবে না বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) খেলা। নির্ধারিত সময়েই মাঠে গড়াবে এই ঘরোয়া লিগের টি-টোয়েন্টি আসর।

সোমবার (৭ অক্টোবর) বিসিবি কার্যালয়ে তিনি জানান, যথা সময়েই অনুষ্ঠিত হবে বিপিএল।

আগামী ৬ ডিসেম্বর থেকে শুরু হওয়ার ঘোষণা রয়েছে এই ঘরোয়া লিগের সপ্তম আসর।

বিসিবি’র একজন পরিচালক ছাড়াও চলমান ক্যাসিনো বিরোধী অভিযানে বিভিন্ন স্পোর্টস ক্লাবে জুয়া ও ক্যাসিনোর আসর ধরা পড়েছে। এ অবস্থায় বিপিএল আয়োজন হবে কী না এমন শঙ্কা দেখা দেয় সংশ্লিষ্ট মহলে। এ নিয়েই সোমবার সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দেন বিসিবির উর্ধ্বতনরা।

তবে ক্যাসিনো কাণ্ডে বোর্ডের একজন সদস্য ধরা পড়ার পরপরই বিসিবি তার অবস্থান স্পষ্ট করে। গত ২৭ সেপ্টেম্বর নিজ বাড়িতে সাংবাদিকদের ডেকে কথা বলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। ‘যদি কেউ অন্যায় করে থাকে তার বিচার হবে, এখানে ছাড় পাওয়ার কোনো কারণই নেই। বিসিবিও ছাড় দেবে না,’ সাংবাদিকদের জানিয়ে দেন তিনি।

তবে এবার বিপিএলের ভাগ্যে কী আছে? সে নিয়ে সংশয় দেখা দেয় আরও আগেই। ফ্র্যাঞ্চাইজিদের বাদ দিয়ে এবারের আসর ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’ নামে আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। আয়োজনের পৃষ্ঠপোষক কারা হচ্ছেন তা এখনও ঠিক হয়নি। এছাড়াও বিদেশি খেলোয়াড় কারা আসবে সেটি নিয়েও কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। তাই বিপিএলের ভবিষ্যৎ নিয়ে শঙ্কা দেখা দেয়। বিসিবি কর্মকর্তাদের মুখেও সে শঙ্কার কথা শোনা যায়।

১ অক্টোবর বিসিবির মিডিয়া কমিটি ও বিপিএল টেকনিক্যাল কমিটির প্রধান জালাল ইউনুসও সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, নির্ধারিত তারিখে বিপিএল শুরু হওয়া নিয়ে আছে সংশয়। কারণ, বিসিবি সাতটি দলের জন্য পৃষ্ঠপোষক চেয়ে যে বিজ্ঞাপন দিয়েছে তাতে সাড়া মিলেছে পাঁচ-ছয়টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের।

তবে সোমবার তিনি বলেছেন, নির্ধারিত সময়েই বিপিএল শুরু হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *