রাঙ্গুনিয়ায় হাত পা বেধে মধ্যযুগীয় কায়দায় গৃহবধূকে নির্যাতন

উত্তর চট্টগ্রাম প্রচ্ছদ বৃহত্তর চট্টগ্রাম

Sharing is caring!

ইমরান হোসেন, রাঙ্গুনিয়া।

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার শিলক রাস্তার মাথা এলাকায় শানু আকতার (২৪) নামের এক গৃহবধূকে মধ্যযুগীয় কায়দায় শারীরিক নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে।

শুক্রবার (১১ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে হাত পা বেঁধে শানুকে মারধর করে তার শশুর বাড়ির লোকজন।

জানা গেছে শানু আকতার উপজেলার পূর্ব সরফভাটার ৯ নং ওয়ার্ড এলাকার আলী বক্সের মেয়ে। গত ৫ বছর আগে যৌতুক নিয়ে শানু আকতারকে বিয়ে করেছিলো রাঙ্গুনিয়া উপজেলার রাস্তার মাথার ৪নং ওয়ার্ড এর বহদ্দার পাড়া এলাকার শাহ আহমদের ছেলে ফোরকান।

দুবাই প্রবাসী ফোরকান বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই অন্য মেয়ের সাথে পরকীয়ার সম্পর্ক গড়ে তুলে। এরপর থেকে বিভিন্ন সময়ই কারণে অকারণে শানু আকতার এর উপর শারীরিক নির্যাতন চালায় তাঁরা। সংসারের দিকে চেয়ে সবই মুখ বুজে সহ্য করে যেতো শানু। কিন্তু এরপরও বন্ধ হয়নি এমন পাশবিক নির্যাতন। রেহাই পায়নি শানু আকতার শারীরিক নির্যাতন থেকে। শানু আকতার এর উপর এ শারীরিক নির্যাতন মধ্যযুগীয় বর্বরতাকেও হার মানিয়েছে।

মোহাম্মদ হাসান মুরাদ নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী সিনিউজ অনলাইনকে জানান,গতকাল শুক্রবার হঠাৎ সন্ধ্যায় শানু আকতার এর মা আমাকে দেখে কান্না জুড়ে দেয় আমার মেয়েকে বাঁচাও বলে। আমার মেয়ে শানু’র শশুর বাড়ির লোকজন হাত পা বেঁধে শারীরিক নির্যাতন চালাচ্ছে।

এসব শুনে শিলক উপ-থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। স্থানীয় ইউপি সদস্য জনাব ইয়াকুব আলীকে নিয়ে তার শশুর বাড়িতে গেলে দেখা যায়,শানু আকতার’কে হাত পা বেধে চার-পাচঁজন মহিলা মধ্যযুগীয় কায়দায় শারীরিক নির্যাতন চালাচ্ছে।

পরে শিলক উপ-থানার উপ পরিদর্শক মুজিব ও পুলিশ সদস্যদের সাহায্যে শানু আকতারকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়।
পরে শানু আকতার এর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

শানু আকতার এর এ শারীরিক নির্যাতনের বিষয় নিয়ে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। বর্তমানে শানু আকতার চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *