সুশাসন প্রতিষ্ঠায় চলমান অভিযান অব্যাহত থাকবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

জাতীয়

Sharing is caring!

আবরার হত্যার ঘটনা দুঃখজনক উল্লেখ করে স্বরাষ্টমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, এ ঘটনায় আমরা বিস্মিত! মেধাবী শিক্ষার্থী না হলে বুয়েটে কেউ চান্স পায় না। সেই মেধাবী শিক্ষার্থীরা এভাবে খুন করল! তাদের মত মেধাবীদের মস্তিষ্ক এতটা বিকৃত হবে, এটা আমাদের ধারণাই ছিল না।

শনিবার (১৯ অক্টোবর) দুপুরে বাংলাদেশ ফিল্ম ডেভেলপমেন্ট করপোরেশনে (বিএফডিসি) ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি আয়োজিত ছায়াসংসদ বিতর্ক ইউসিবি পাবলিক পার্লামেন্ট- ‘সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে বর্তমান সরকার এগিয়ে চলছে’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, ‘আবরার হত্যার ঘটনায় শুধু দুঃখ প্রকাশ করে থেমে থাকেনি। আমরা সঙ্গে সঙ্গে অপরাধীদের ধরেছি। সেইসঙ্গে নির্দেশ দিয়েছি, এ ঘটনায় অতিদ্রুত যাতে নির্ভুল একটা চার্জশিট প্রস্তুত করা হয়।’

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, ‘আপনারা দেখছেন আমাদের প্রধানমন্ত্রী টেন্ডারবাজি, অনিয়মকারী কাউকে ছাড় দিচ্ছেন না। আমরা অবশ্যই এ টেন্ডারবাজ, দুর্নীতিবাজ এবং অনিয়মকারীদের কন্ট্রোলে নিয়ে আসব। প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দূর করবেন। তিনি কিন্তু তাই করেছেন। দেশের মানুষ এখন জঙ্গিবাদকে আশ্রয়-প্রশ্রয় দেয় না। তাই জনগণকে সঙ্গে নিয়েই জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাসবাদকে নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘এখন মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে। মাদকের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা করেছেন। আমরা সেটি বাস্তবায়নে কাজ করছি। নতুন প্রজন্মের কাছে আহ্বান রাখব তারা যেন মাদক না নেয়। আমরা চাই না নতুন প্রজন্ম একটি ভুলের মধ্য দিয়ে হারিয়ে যাক। আমরা যে নতুন বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন দেখি, সেটি যেন তরুণ প্রজন্ম বাস্তবায়ন করতে পারে।’

সুশাসনের কারণে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘২০০৮ আমরা যখন নির্বাচনের মাধ্যমে সরকারের ক্ষমতায় আসি তখন দেশে পূজামণ্ডপ ছিল ৯ হাজার বা ১০ হাজারের মতো। বর্তমানে সে সংখ্যা ৩২ হাজারের কাছাকাছি। শুধু পূজামণ্ডপ নয়, দেশে এমন কোনো জেলা নাই যেখানে বৌদ্ধ ধর্মের কোনো প্যাগোডা নেই। সব ধর্মের প্রতিনিধিরা নির্বিঘ্নে বাংলাদেশে থাকছেন। কে মুসলিম, কে হিন্দু, কে বৌদ্ধ, কে খ্রিষ্টান, কে পাহাড়ি, কে নৃ-গোষ্ঠী আমরা তা দেখছি না। আমাদের কাছে সবাই বাঙালি। সবাই মিলেমিশে দেশকে এগিয়ে নিতে চাই।’

দেশের চলমান শুদ্ধি অভিযানের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘উন্নত বাংলাদেশ গড়তে দুর্নীতি, সন্ত্রাসবাদ এবং জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত চলমান অভিযান অব্যাহত থাকবে; যাতে কেউ ভবিষ্যতে দুর্নীতি, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদে জড়াতে সাহস না পায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *