অনৈতিক সম্পর্ক দেখে ফেলায় মেয়েকে খুন করেন মা, পরে স্বামীকেও

অপরাধ চট্টগ্রাম মহানগর

Sharing is caring!

চট্টগ্রাম নগরীতে একটি বাসা থেকে বাবা ও মেয়ের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধারের রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। পুলিশ জানায়, অনৈতিক সম্পর্ক দেখে ফেলায় মা তার প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে নিজের শিশুকন্যাকে খুন করেছেন। একইভাবে ওই মা তার স্বামীকেও খুন করেন।

রোববার (২০ অক্টোবর) সকালে নগরীর দামপাড়ায় সিএমপি কমিশনারের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানিয়েছেন নগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (অপরাধ ও অভিযান) আমেনা বেগম।

পুলিশ অভিযুক্ত হাছিনা বেগম (৩০) ও তার প্রেমিক মাইন উদ্দিনকে (৪৫) গ্রেফতার করেছে। জিজ্ঞাসাবাদে তাদের কাছ থেকে এমন তথ্য পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন আমেনা বেগম।

এর আগে শনিবার (১৯ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে খবর পেয়ে নগরীর বন্দর থানার নিমতলা মোড়ে শাহআলমের ভবনে যায় পুলিশ। সেখানে নিচতলার বাসায় দুজনের রক্তাক্ত মরদেহ পাওয়া যায়।

নিহত দুজন হলেন- মো. আবু তাহের (৩৫) ও তার সাড়ে তিনবছর বয়সী মেয়ে ফাতেমা নুর। তাদের বাড়ি নোয়াখালী জেলার বসুরহাট উপজেলার চরকাঁকড়া গ্রামে। আবু তাহের পেশায় গুদাম শ্রমিক।

এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হাছিনা বেগমকে নিজেদের হেফাজতে নেয় পুলিশ। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে রাত সাড়ে তিনটার দিকে মাইন উদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানিয়েছেন বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকান্ত চক্রবর্তী।

নিহত আবু তাহেরের বড় ভাই নুর আলম বাদি হয়ে হাছিনাকে আসামি করে বন্দর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *