চট্টগ্রামে ইয়াবা উদ্ধার: ভারতীয় নাগরিকসহ ৫ নারী আটক

অপরাধ চট্টগ্রাম মহানগর

Sharing is caring!

চট্টগ্রাম নগরীতে একটি মাইক্রোবাসে তল্লাশি চালিয়ে ২০ হাজার ইয়াবাসহ ৫ নারীকে আটক করেছে র‌্যাব। এদের মধ্যে একজন ভারতীয় নাগরিক। আটক পাঁচ নারী আন্তর্জাতিক ইয়াবা সিন্ডিকেটের সদস্য বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

রোববার (২০ অক্টোবর) বিকেলে নগরীর জাকির হোসেন সড়কে চট্টগ্রাম সরকারী মহিলা কলেজের সামনে মাইক্রোবাস আটকে তল্লাশি চালায় র‌্যাব।

র‌্যাব জানিয়েছে, আটক পাঁচজনের মধ্যে দুই পরিবারের চারজন মা-মেয়ে। তারা হলেন- রোজিনা বেগম (৫২) ও নাইমা বেগম (২৮) এবং শাহনাজ বেগম (৫০) ও সুমাইয়া ইসলাম (২১)। আটক ভারতীয় নাগরিক কোমল কর (২৮)।

অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া র‌্যাবের চট্টগ্রাম জোনের কর্মকর্তা এএসপি কাজী মো. তারেক আজিজ জানান, আটক কোমল করের বাড়ি ভারতের উত্তরাখণ্ডের নানকমাথা এলাকায়। আটক রোজিনা বেগমের বোনের মেয়ে কোমল। রোজিনাও ভারতের উত্তরাখণ্ডের বাসিন্দা ছিলেন। কিন্তু এক বাংলাদেশিকে বিয়ে করে তিনি ধর্মান্তরিত হন। পরে স্থায়ীভাবে বাংলাদেশে বসবাসের মাধ্যমে এদেশের নাগরিকত্ব পান।

তারেক আজিজ বলেন, ‘আমাদের কাছে তথ্য ছিল আন্তর্জাতিক ইয়াবা সিন্ডিকেটের পাঁচজন সদস্য একটি মাইক্রোবাসে করে কক্সবাজার থেকে ইয়াবা নিয়ে রোববার দুপুরের মধ্যে চট্টগ্রাম নগরী অতিক্রম করবে। এই চক্রকে ধরতে আমরা নগরীর বিভিন্নস্থানে চেকপোস্ট বসিয়ে তল্লাশি শুরু করি। শেষপর্যন্ত আমরা জাকির হোসেন রোডে এসে মাইক্রোবাসটি আটকাতে সক্ষম হয়। সেখানে দুটি ভ্যানিটি ব্যাগে ইয়াবাগুলো পাওয়া গেছে।’

আটক নারীরা বিভিন্নসময় ভারতেও ইয়াবা নিয়ে যাবার কথা জানিয়েছেন বলে জানান র‌্যাব কর্মকর্তা তারেক আজিজ। তিনি বলেন, ‘আটক নারীরা জানিয়েছেন বিভিন্নসময় তারা কক্সবাজার থেকে ইয়াবার চালান নিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে, এমনকি ভারতেও বেশ কয়েকবার তারা ইয়াবা নিয়ে গেছেন। এবারের চালানটি তারা ঢাকায় নিয়ে যাচ্ছিলেন বলে জানিয়েছেন। ভারতের নাগরিক কোমল কর মাঝে মাঝে ঢাকায় আসেন এবং খালা রোজিনার বাসায় ওঠেন।’

আটক পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছেন এই র‌্যাব কর্মকর্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *