রাঙ্গুনিয়ায় নদী ভাঙন প্রতিরোধে ব্লক স্থাপন কার্যক্রম শুরু হয়েছে

উত্তর চট্টগ্রাম প্রচ্ছদ বৃহত্তর চট্টগ্রাম

Sharing is caring!

১৪ নভেম্বর (বৃহস্পতিবার) পশ্চিম সরফভাটা পাইট্টেলিকুল সংলগ্ন মৌলানাগ্রামে নদী ভাঙ্গন প্রতিরোধে এ ব্লক স্থাপন কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।

রাঙ্গুনিয়ায় কর্ণফুলী নদীতে ভাঙন প্রতিরোধক হিসেবে প্রাথমিকভাবে জিআর ব্যাগ ফেলে ব্লক স্থাপন কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।

সরফভাটা ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে মৌলানাগ্রাম নদী ভাঙ্গনরোধে ব্লক স্থাপন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন সরফভাটা ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শেখ ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী।

রাঙ্গুনিয়ার সমূহ এলাকার নদী ভাঙনরোধ তথা সার্বিক উন্নয়নে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ আপোষহীন। উন্নয়নের এ ধারাবাহিকতায় তথ্যমন্ত্রীর একান্ত প্রচেষ্টায় নদী ভাঙ্গনরোধে বরাদ্দকৃত ৩৯০ কোটি টাকার এই প্রকল্পের কাজ শুরু হয়ে গেছে। এর অংশ হিসেবে উপজেলার সরফভাটা ইউনিয়নেও ভাঙন কবলিত এলাকায় ব্লক স্থাপন করা হচ্ছে।

প্রকৌশলী আনোয়ার হোসেন রুবেল তালুকদারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন পানি উন্নোয়ন বোর্ড চট্টগ্রামের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মো. জিয়া উদ্দিন আরিফ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন সরফভাটা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শামসুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কালাম মেম্বার, আবুল কালাম চৌধুরী, নবীর হোসেন তালুকদার, আবদুল সবুর রাজু, আহসান উল্লাহ, সাইদুর রহমান তালুকদার, মো. ইদ্রিছ মেম্বার, মো. মাসুদ মেম্বার, খোরশেদ আলম সুজন, মাওলানা নাছির উদ্দিন আল কাদেরী, মো. ইসমাঈল মেম্বার, হাবিব উল্লাহ বাহার, মো. আলী মেম্বার, মো. জাহাঙ্গীর মেম্বার, মো. নাজের মেম্বার, রিজিয়া আক্তার, মো. কাসেম, আমিনুল ইসলাম, মো. জাফর, যুবলীগ নেতা মাহবুব আলম, জামাল উদ্দিন, সাইফুল্লাহ চৌধুরী, মার্শাল টিটু, মো. কামাল, মো. শহিদুল্লাহ, মো. কামাল, ছাত্রলীগ নেতা মো. সেলিম, রাসেল রাসু, সোহেল আরমান, আরিফুল ইসলাম সারেক, মো. বেলাল, এজিএস মো. রহমত, মো. সবুজ, মো, শাহেদ, মো. জাহেদ প্রমুখ।

সরফভাটা ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শেখ ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী বলেন, সরফভাটার সবচেয়ে ভাঙন কবলিত এলাকা পাইট্টেলিকুল মৌলানা গ্রাম। এই গ্রাম দিয়ে বিগত ২০ বছরে অন্তত পাঁচ’শত বসতঘর নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে।
এই সময়ে বিভিন্ন জনপ্রতিনিধিরা নদী ভাঙ্গনরোধে ব্লক স্থাপনের আশ্বাস দিলেও বাস্তবায়ন করেনি।

পরবর্তীতে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ মহোদয়ের হাত ধরে অবশেষে ভাঙন প্রতিরোধে এই এলাকা দিয়ে ব্লক স্থাপিত হতে যাচ্ছে।
এছাড়াও এই এলাকায় প্রায় ১৪ কোটি টাকার ব্লক স্থাপন করা হবে বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *