রাঙ্গুনিয়ার ২ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দু’টিতেই নৌকা প্রার্থীর জয়

উত্তর চট্টগ্রাম প্রচ্ছদ বৃহত্তর চট্টগ্রাম

Sharing is caring!

ইমরান হোসেন :-চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার মরিয়মনগর ও স্বনির্ভর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে।
আর এ দু’টি ইউনিয়নেই চেয়ারম্যান জয় পেয়েছে আওয়ামী লীগের মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থীরা।

সোমবার (৩০ ডিসেম্বর) সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত মরিয়ম নগর ইউনিয়ন পরিষদ ও স্বনির্ভর ইউনিয়ন পরিষদ এর ১৮টি কেন্দ্রের ৭৪টি বুথে’ই এই ভোট গ্রহণ কার্যক্রম চলে।

মরিয়মনগর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মুজিবুল হক হিরু। তিনি নৌকা প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৮ হাজার ৬শত ১১ ভোট।
তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মোঃ সেলিম আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ৪শত ভোট।

স্বনির্ভর রাঙ্গুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী নুর উল্লাহ। তিনি নৌকা প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৫ হাজার ৫শত ৪ ভোট।
তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী রহিম উদ্দিন চৌধুরী টেলিফোন প্রতীকে পেয়েছেন ১ হাজার ৭শত ২১ ভোট।

এদিকে ইউপি সদস্য পদেও এই দুই ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডে একাধিক প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেছেন। এরমধ্যে শুধুমাত্র মরিয়ম নগরেই ইউপি সদস্য প্রার্থী ছিল ৫৩ জন।

মরিয়ম নগর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ইউপি সদস্য পদে ১ নম্বর ওয়ার্ডে ৬ জন প্রার্থীর মধ্যে ৮০২ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন মোহাম্মদ ইসমাইল (ফুটবল)।
২ নম্বর ওয়ার্ডে ৮ জন প্রার্থীর মধ্যে ৪০৯ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য পদে নির্বাচিত হয়েছেন এনামুল করিম সিকদার (তালা)।

৩ নম্বর ওয়ার্ডে ৪ জন প্রার্থীর মধ্যে ৩০৫ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য মোঃ ওবাইদুল হক (ফুটবল)।
৪ নম্বর ওয়ার্ডে ৩ জন প্রার্থীর মধ্যে ৩৪৮ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন সিরাজুল ইসলাম (বৈদ্যুতিক পাখা)।

৫ নম্বর ওয়ার্ডে ৫ জন প্রার্থীর মধ্যে ৩৭৬ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন শামসুল আলম (তালা)।
৬ নম্বর ওয়ার্ডে ৮ জন প্রার্থীর মধ্যে ২৮৯ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন মোঃ বেলাল হোসেন (বৈদ্যুতিক পাখা)।

৭ নম্বর ওয়ার্ডে ৯ জন প্রার্থীর মধ্যে ৩০৯ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন জাহাঙ্গীর আলম (মোরগ)।
৮ নম্বর ওয়ার্ডে ৬ জন প্রার্থীর মধ্যে ১৭২ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন মো. রেজাউল করিম (টিউবওয়েল)।

এবং ৯ নম্বর ওয়ার্ডে ৪ জন প্রার্থীর মধ্যে ৩২২ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন এরশাদুর রহমান (মোরগ)।

এছাড়াও মরিয়মনগর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য পদে ৮ জন প্রার্থীর মধ্যে ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডে ২৪৮০ ভোট পেয়ে নারী ইউপি সদস্য পদে নির্বাচিত হয়েছেন ইয়াছমিন আরা বেগম (বই)।

৪, ৫ ও ৬ নং ওয়ার্ডে ১২৭৬ ভোট পেয়ে নারী ইউপি সদস্য পদে নির্বাচিত হয়েছেন রহিমা আক্তার (বই)।
এবং ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডে ১৪৫৯ ভোট পেয়ে নারী ইউপি সদস্য পদে নির্বাচিত হয়েছেন জয়তুন নুর বেগম (মাইক)।

স্বনির্ভর রাঙ্গুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ইউপি সদস্য পদে ৪০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বী ছিল।
১ নম্বর ওয়ার্ডে ২ জন প্রার্থীর মধ্যে ৪৯৬ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন মোঃ সেকান্দর (মোরগ)।
২ নম্বর ওয়ার্ডে ৩ জন প্রার্থীর মধ্যে ৩৩৮ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন নুরুল আবছার (মোরগ)।

৩ নম্বর ওয়ার্ডে ৪ জন প্রার্থীর মধ্যে ৩৮৮ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন রমেন্দ্র লাল দে (তালা)। ৪ নম্বর ওয়ার্ডে ৪ জন প্রার্থীর মধ্যে ৩৭৩ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন তাপস চক্রবর্ত্তী (বৈদ্যুতিক পাকা)।
৫ নম্বর ওয়ার্ডে ৫ জন প্রার্থীর মধ্যে ১৮৪ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন মোঃ বাদশা আলম (মোরগ)।

৬ নম্বর ওয়ার্ডে ৫ জন প্রার্থীর মধ্যে ৩০৪ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন অভিজিৎ দে (তালা)।
৭ নম্বর ওয়ার্ডে ৮ জন প্রার্থীর মধ্যে ২৫০ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন মোঃ সেলিম (ফুটবল)।
৮ নম্বর ওয়ার্ডে ৬ জন প্রার্থীর মধ্যে ২০১ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন মোঃ আবদুল গফুর (মোরগ)।

এবং ৯ নম্বর ওয়ার্ডে ৩ জন প্রার্থীর মধ্যে ২৫৩ ভোট পেয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন তাপস সাহা (ফুটবল)।

এছাড়াও স্বনির্ভর রাঙ্গুনিয়ায় সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য পদে ৮ জন প্রার্থীর মধ্যে ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডে ১১৫২ ভোট পেয়ে নারী ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন
দিপ্তী কর্মকার (মাইক)।
৪, ৫ ও ৬ নং ওয়ার্ডে ১১২২ ভোট পেয়ে নারী ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন খুরশিদা বেগম (বই)।
এবং ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডে ১৪৪৩ ভোট পেয়ে নারী ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন জেরিনা আক্তার (বই)।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা অরুন উদয় ত্রিপুরা নির্বাচনের এই ফলাফল ঘোষণা করেন।

Leave a Reply