বেসরকারি হাসপাতাল সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারি

চট্টগ্রাম মহানগর নাগরিক দুর্ভোগ প্রচ্ছদ

Sharing is caring!

চট্টগ্রামে নাগরিকদের চিকিৎসা সেবা প্রদানে বেসরকারি হাসপাতাল মালিকদের ভূমিকার বিরুদ্ধে এবার মুখ খুলছেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতারা। চলমান পরিস্থিতিতে চট্টগ্রামে বেসরকারি হাসপাতাল গুলোর ভূমিকা হতাশাজনক উল্লেখ করে এই বিষয়ে সরকারের দেয়া নির্দেশনা মেনে সাধারণ মানুষের পাশে দাড়াতে বেসরকারি হাসপাতাল মালিকদের প্রতি আহবানও জানিয়েছেন তারা। না হলে এসব হাসপাতাল মালিকদের বিরুদ্ধে কঠোর আন্দোলনে যাওয়ার হুশিয়ারিও দিয়েছেন তারা।

চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এম আর আজিম সিনিউজ অনলাইনকে বলেন, ‘চট্টগ্রামে বেসরকারি হাসপাতালে রোগীরা চিকিৎসা সেবা পাচ্ছেনা। কয়েকজন স্বার্থান্বেষী মানুষ পরিকল্পিতভাবে চট্টগ্রামের মানুষদের চিকিৎসাহীন মৃত্যুত দিকে ঠেলে দিচ্ছে। সকল রোগীকে চিকিৎসা দিতে সরকারের নির্দেশনা থাকলেও সামান্য জ্বর কাশি নিয়েও অনেকে হাসপাতালে ভর্তি হতে পারছেনা। এই পরিস্থিতি বেশিদিন চলতে দেয়া যাবে না।’

তিনি বলেন, ‘কয়েকজন স্বার্থান্বেষী মানুষ যেভাবে সাধারণ মানুষকে জিম্মি করে একটা অশুভ খেলা খেলছে সেটা এখন সবার কাছে স্পষ্ট। আমরা তাদের হুশিয়ার করে দিতে চাই। মানুষের জীবন নিয়ে এমন ছিনিমিনি খেলার পরিনতি খুবই ভয়াবহ হবে।’

দ্রুত সময়ের মধ্যে এই ধরণের মরণখেলা বন্ধ করতে হবে উল্লেখ করে এম আর আজিম বলেন, ‘সরকার এর মধ্যেই বেসরকারি হাসপাতালগুলোকে স্পষ্ট নির্দেশনা দিয়েছে। আমরা আশা করছি তা মেনে তারা নাগরিকদের চিকিৎসা দিবে।’

‘না হলে এই অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক নেতাকর্মীদের নিয়ে কঠোর আন্দোলনে যাব আমরা।’

এই বিষয়ে মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. সালাউদ্দিন বলেন, ‘করোনার এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে মানুষকে জিম্মি করে যে মরণ খেলায় মেতে উঠেছে একটি মহল তা আমাদের নজরে রয়েছে। আমরা তাদের হুশিয়ার করে দিতে চাই। অবিলম্বে তারা তাদের এই অবস্থান থেকে সরে না আসলে চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক নেতাকর্মীদের নিয়ে কঠোর আন্দোলনে যাব আমরা। এই বিষয়ে আমরা নিজেদের মধ্যে আলাপ আলোচনা করেছি। নাগরিকদের স্বার্থরক্ষায় আমরা আমাদের জীবনের শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে রাজপথে থাকতে বদ্ধ পরিকর।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *