ভালোবাসার পরম নির্ভরতার নাম বাবা

ফিচার বিশেষ দিন

Sharing is caring!

নাবিলা ইবনাদ »  বলা হয়ে থাকে বাবা সন্তানের জীবনে ছায়ার মতো। যে ছায়া বট গাছের ছায়ার থেকেও লক্ষগুণ বেশি বিস্তৃত। বাবা হচ্ছে শিকড় যার উপর সমস্ত ভার পরম নির্ভরতায় ছেড়ে আসা যায়।

আমাদের বাবা, শত সাধারণের মাঝেও অসাধারণ হয়ে ওঠা আমাদের জনক, আমাদের অকাতরে ভালোবেসে যান তার সামর্থ্যের শেষ বিন্দুটুকু দিয়ে। উজাড় করে দেন তার সবকিছুই শুধু তার সন্তানের জন্য। তার যা কিছু আছে নিজের জন্য আর অবশিষ্ট রাখেন না কোনোভাবেই। সবকিছু উজাড় করে দেয়ার পরও তাকে কোনোভাবে নিঃস্ব বলে মনে হয় না। মনে হয় তিনি যেন পরম তৃপ্তিতে আরও পরিপূর্ণ হয়ে উঠেছেন।

শ্রদ্ধা,কৃতজ্ঞতা, ভালোবাসা,পরম নির্ভরতার নাম বাবা। কবি হোমার বলেছিলেন,”সেই জ্ঞানী বাবা, যে তার সন্তানকে জানেন।”

প্রতি বছর জুন মাসের তৃতীয় রবিবার বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পালন করা হয় বাবা দিবস। আমাদের দেশেও পালন করা হয় এদিনটি। যদিও বাবার প্রতি সন্তানের ভালোবাসা প্রকাশের জন্য দিনটি বিশেষভাবে উদযাপনের প্রয়োজন হয় না। তার পরেও পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের মতো বাংলাদেশেও বাবা দিবস পালন করা হয়।

মাকে হয়তো কাছে একটু বেশী পাওয়া যায় তাই ভালোবাসাটাও একটু বেশী থাকে। আর বাবা থাকে সারাদিন অফিসে আর কাজে এক কথায় বাইরে। তাই বাবাকে কাছে একটু কম পাওয়া যায়। তবে বাবা সন্তানের জন্য তার দায়িত্বটা ঠিকই পালন করে যান।

বাবা সুতোর মতোন পরিবারের প্রতিটি সদস্যকে গেঁথে রাখেন। পরিবারের সদস্যরা মুক্ত আর বাবা সুতো হয়ে সবাইকে একসাথে জুড়ে রাখেন। সুতো ছিঁড়ে গেলে যেমন মুক্ত এলোমেলো হয়ে ছিটকে পড়ে তেমনি বাবা না থাকলে সবকিছু এলোমেলো হয়ে যায়।

শেষ করছি একটি উক্তি দিয়ে, কোনো এক বিখ্যাত মনীষী বলেছিলেন,” যদি বাবার মূল্য বুঝতে চাও তাহলে হাতের বুড়ো আঙুলের সাহায্য ছাড়া একদিন কাজ কর তাহলে বাবা কি বুঝবে।” সকল বাবার প্রতি ভালোবাসা এবং শ্রদ্ধা।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *