পবিত্র ঈদুল আজহা ১ আগস্ট

ধর্ম প্রচ্ছদ ফিচার

Sharing is caring!

ঢাকা : দেশের আকাশে জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা না যাওয়ায় জিলক্বদ মাস ৩০ দিন পূর্ণ হয়ে আগামী বৃহস্পতিবার (২৩ জুলাই) থেকে জিলহজ মাস গণনা শুরু হবে। সেই হিসাবে আগামী ১ আগস্ট সারাদেশে ঈদুল আজহা উদযাপন করা হবে।

মঙ্গলবার (২১ জুলাই) সন্ধ্যায় জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠক থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, আজ সন্ধ্যায় জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠক হয়েছে। বৈঠকে সারাদেশ থেকে চাঁদ দেখার কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। এছাড়া বাংলাদেশ মহাকাশ গবেষণা ও দূর অনুধাবন প্রতিষ্ঠান (স্পারসো) এবং আবহাওয়া অফিসের সঙ্গেও যোগাযোগ হয়েছে। কোনো সূত্র থেকেই চাঁদ দেখার খবর মেলেনি। ফলে আগামীকাল হবে ৩০ জিলকদ, বৃহস্পতিবার থেকে জিলহজ মাস শুরু হবে। সে হিসাবে ১ আগস্ট দেশে ঈদুল আজহা পালন করা হবে।

ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. নূরুল ইসলামের সভাপতিত্বে বায়তুল মোকাররমে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

ঈদুল আজহা মুসলিমদের অন্যতম বড় একটি উৎসব। এই উৎসবের অংশ হিসেবেই পশু কোরবানি দেওয়া হয়ে থাকে। তবে পশু কোরবানি দিলেও এর অন্তর্নিহিত তাৎপর্য হলো মনের লোভ-লালসা, হিংসা-বিদ্বেষ ত্যাগ করে আত্মত্যাগের শিক্ষাকে ধারণ করা।

ইসলামে কোরবানি খুবই তাৎপর্যপূর্ণ একটি ইবাদত। পবিত্র কোরআনে সুরা কাউসারে বলা হয়েছে, ‘অতএব আপনার পালনকর্তার উদ্দেশে নামাজ পড়ুন এবং কোরবানি করুন।’ রাসুল (সা.) বলেছেন, ঈদুল আজহার দিন কোরবানির চেয়ে আর কোনো কাজ আল্লাহর কাছে বেশি পছন্দনীয় নয়।

প্রতিবছর মহাসমারোহে এই উৎসব পালন করা হলেও এ বছর বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে কিছুটা ভিন্ন আঙ্গিকে হাজির হচ্ছে ঈদুল আজহা। মার্চ থেকে শুরু হয়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এখনো না কমায় স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব অনুসরণের বাধ্যবাধকতা থাকছে। ফলে পশুর হাট থেকে শুরু করে পশু কোরবানির প্রতিটি ধাপই আগের বছরগুলোর চেয়ে কিছুটা ভিন্ন হবে।

এর আগে, সোমবার সৌদি আরবের গণমাধ্যমগুলোর খবরে জানা যায়, দেশটিতে সোমবার জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে বুধবার থেকে দেশটিতে জিলহজ মাস গণনা শুরু হবে। সে হিসাবে দেশটিতে ৩০ জুলাই হজ ও ৩১ জুলাই ঈদুল আজহা পালন করা হবে।

এএ/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *