বাজারে টিকে থাকতে সিলিন্ডারে ১০০ টাকা দাম কমিয়েছে বিপিসি

সারাদেশ

Sharing is caring!

চট্টগ্রাম : আন্তর্জাতিক বাজারে এলপি গ্যাসের দাম নিম্নমুখী হওয়ায় প্রতিযোগিতামূলক বাজারে টিকে থাকতে সিলিন্ডার প্রতি (১২ কেজি) একশ টাকা করে দাম কমিয়েছে বিপিসি। এবার খুচরা ভোক্তা পর্যায়ে ৬শ টাকায় বিক্রি হচ্ছে এলপি গ্যাসের সিলিন্ডার।

গত ২১ জুলাই থেকে এলপি গ্যাসের দাম কমানোর এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন এলপিজিএল এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী মো. ফজলুর রহমান খান। বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের (বিপিসি) অঙ্গ প্রতিষ্ঠান এলপি গ্যাস লিমিটেড (এলপিজিএল) এসব সিলিন্ডার সারাদেশে পাওয়া যায়।

এলপিজিএল সূত্রে জানা গেছে, অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে এলপিজি সংগ্রহ করে বোতলজাত করার পর মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বিপণনকারী চার অঙ্গ প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠান পদ্মা অয়েল কোম্পানি, যমুনা অয়েল কোম্পানি, মেঘনা পেট্রোলিয়াম ও স্ট্যান্ডার্ড এশিয়াটিক অয়েল কোম্পানি (এলএওসিএল) মাধ্যমে বাজারজাত করা হয়। এলপিজিএলের ১২ কেজির প্রতি বোতল গ্যাসের আগের ভোক্তা মূল্য ছিল (ভ্যাটসহ) ৭০০ টাকা। তন্মধ্যে প্রতি বোতল সাকুল্যে ৬১০ টাকা দরে বিপণনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে সরবরাহ করে এলপিজিএল। এতে বোতল প্রতি ৬৫ টাকা করে পায় বিপিসির এ চার অঙ্গ প্রতিষ্ঠান। ৬৭৫ টাকা করে সরবরাহ করা হয় বিপিসির তালিকাভুক্ত ডিলারদের। ডিলাররা ২৫ টাকা লাভে খুচরা গ্রাহকদের কাছে বিক্রি করে। বর্তমানে সব অনুপাত ঠিক রেখে শুধু ভোক্তা পর্যায়ে প্রতি সিলিন্ডার ৬শ টাকা নির্ধারণ করেছে বিপিসি।

এতে করে চার বিতরণ কোম্পানিকে ৫১০ টাকা গ্যাসভর্তি সিলিন্ডার সরবরাহ করবে এলপিজিএল। এরপর ৬৫ টাকা বেশি দামে ৫৭৫ টাকায় ডিলারদের কাছে বিক্রি করবে বিতরণ কোম্পানিগুলো।

এলপিজিএল এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী মো. ফজলুর রহমান খান বলেন, আগের মূল্য থেকে একশ টাকা কমানো হয়েছে প্রতি সিলিন্ডারে। এখন গ্রাহকরা ৬শ টাকায় এলপিজির সিলিন্ডার ব্যবহার করতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *