দেশ ছাড়তে করোনা সনদ জালিয়াতি শাজাহান কন্যার!

জাতীয়

Sharing is caring!

ঢাকা : মহামারি করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) স্থবির করে রেখেছে পুরো বিশ্বকে। আর বাংলাদেশে চলছে করোনা সনদ জালিয়াতি করে নেগেটিভ রিপোর্টের খেলা। এবার কোভিড-১৯ সনদ জালিয়াতি করে নেগেটিভ রিপোর্ট নিয়ে ধরা খেলেন সাবেক নৌ-পরিবহন মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শাজাহান খানের মেয়ে ঐশী খান। দেশ ছাড়ার আগে ইমিগ্রেশনে অনলাইন চেকে তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট পাওয়া যায়।

রোববার (২৬ জুলাই) সকালে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশনে বিষয়টি ধরা পড়লে ঐশীকে লন্ডন যেতে দেওয়া হয়নি। বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন ডিপার্টমেন্ট গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সূত্র জানায়, রোববার (২৬ জুলাই) সকালে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি-০০১ ফ্লাইটে লন্ডন যাওয়ার জন্য হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যান ঐশী। ইমিগ্রেশনে তার সঙ্গে থাকা করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট চেক করেন ইমিগ্রেশন কর্মকর্তা। ইমিগ্রেশন পুলিশ অনলাইনে করোনা সার্টিফিকেট চেক করলে সেটি পজিটিভ দেখায়। সঙ্গে সঙ্গেই তাকে বিমানবন্দর থেকে ফেরত পাঠানো হয়।

এ ব্যাপারে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের উপ-মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) তাহেরা খন্দকার বলেন, ‘ইমিগ্রেশনে করোনা পজিটিভ ধরা পড়ায় বিমানের লন্ডন ফ্লাইটে একজন যাত্রীকে যেতে দেওয়া হয়নি। তার পরিচয় কী, সেটা আমরা জানি না। তিনি বিমানের যাত্রী ছিলেন, ইমিগ্রেশনে করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট নিয়ে গেছেন, কিন্তু অনলাইনে চেক করলে সেটা পজিটিভ আসে। সেজন্য ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ তাকে লন্ডন যেতে দেয়নি।’

এর আগে করোনার ভুয়া রিপোর্ট দেয়ার অভিযোগে রিমান্ডে আছেন রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো. শাহেদ করিম এবং কারাগারে আছেন জেকেজির চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা চৌধুরী ও আরিফ।

এএ/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *