নিয়ন্ত্রিত গণতান্ত্রিক দেশে সুশাসন আশা করা ভুল: ডাঃ শাহাদাত

রাজনীতি

Sharing is caring!

চট্টগ্রামঃ চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি’র সভাপতি ডাঃ শাহাদাত হোসেন বলেছেন, নিয়ন্ত্রিত গণতান্ত্রিক দেশে সুশাসন আর উন্নয়ন আশা করাও ভুল। চারিদিকে উন্নয়নের মেগা প্রকল্পের নামে মেগা লুট-পাটে ব্যস্ত শাসক গোষ্ঠী। করোনা মহামারীতেও আওয়ামীলীগের লুটপাট বন্ধ হয়নি। প্রতারণা শিল্পের রমরমা অবস্থা রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি তলানীতে, সরকারে অস্থিরতা বিরাজ করছে।

২৭ জুলাই (সোমবার) নাছিমন ভবনস্থ দলীয় কার্যালয়ে বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান’র নির্দেশে চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের থানা ও ওয়ার্ড কমিটি গঠনকল্পে কমিটি বিহীন ১০টি থানা ও ২৮ ওয়ার্ড যুবদলের নেতা-কর্মীদের রাজনৈতিক জীবন বৃত্তান্ত ফরম বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, সংগঠনের মূল শক্তি তৃণমূলপর্যায়ে থানা-ওয়ার্ড -ইউনিট কমিটি। নিয়মিত কমিটি না হওয়ার ফলে তৃণমূল পর্যায়ে সংগঠন দুর্বল হয়ে পড়েছে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর বলেন, শক্তিশালী সংগঠন তখনই পাওয়া যাবে যখন তার অধীনস্ত সকল ইউনিটে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে কমিটি গঠন করা হবে। আমাদের থানা ও ওয়ার্ড পর্যায়ে দীর্ঘদিন কমিটি না হওয়ার ফলে তৃণমূল পর্যায়ে সংগঠন নাই বললেই চলে।

তিনি এ সময় আশাবাদ ব্যক্ত করেন যুবদল আজকের রাজনৈতিক জীবন বৃত্তান্ত ফরম বিতরণের মধ্য দিয়ে খুব শীঘ্রই নগরে কমিটি বিহীন ১০ টি থানা ও ২৮ টি ওয়ার্ড সুন্দর কমিটি উপহার দিবে। তারেক রহমানের নির্দেশে অচিরেই বিএনপি সহ সব অঙ্গ সংগঠনে সকল ইউনিট কমিটি কাউন্সিলের মাধ্যমে গঠন করা হবে।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদল কেন্দ্রীয় কমিটির চট্টগ্রাম বিভাগীয় সহ-সভাপতি ও চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের সভাপতি মোশাররফ হোসেন দীপ্তি’র সভাপতিত্বে এবং বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদল কেন্দ্রীয় কমিটির চট্টগ্রাম বিভাগীয় সহ-সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ শাহেদ’র পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন সি.সহ-সভাপতি ইকবাল হোসেন, সহ-সভাপতি সাহেদ আকবর, ফজলুল হক সুমন, জাহাঙ্গীর আলম, আব্দুল গফুর বাবুল, সাহাব উদ্দিন হাসান বাবু, মুজিবুর রহমান, সি.যুগ্ম সম্পাদক মোশাররফ হোসাইন, মোঃ সেলিম, তাজুল ইসলাম, তৌহিদুল ইসলাম রাসেল প্রমুখ।

উল্লেখ্য, চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের কমিটি বিহীন ১০ টি থানা যথাক্রমে আকবরশাহ, হালিশহর, বন্দর, পতেঙ্গা, ইপিজেড ডবলমুরিং, কোতোয়ালী, সদরঘাট, চকবাজার ও বাকলিয়া থানা এবং ২৮ টি ওয়ার্ড যথাক্রমে ১৫ নং বাগমনিরাম, ১৬ নং চকবাজার, ১৭নং পশ্চিম বাকলিয়া, ১৮ নং পূর্ব বাকলিয়া, ১৯ নং দক্ষিণ বাকলিয়া, ২০ নং দেওয়ান বাজার , ২১ নং জামাল খান, ২২ নং এনায়েত বাজার, ২৩ নং উত্তর পাঠানটুলি, ২৪ নং উত্তর আগ্রাবাদ, ২৫ নং রামপুর, ২৬ নং উত্তর হালিশহর, ২৭ নং দক্ষিণ আগ্রাবাদ, ২৮ নং পাঠানটুলি, ২৯ নং পশ্চিম মাদারবাড়ী, ৩০ নং পূর্ব মাদারবাড়ী, ৩১ নং আলকরণ, ৩২ নং আন্দরকিল্লা, ৩৩ নং ফিরিঙ্গী বাজার, ৩৪ নং পাথরঘাটা, ৩৫ নং বক্সিরহাট, ৩৬ নং গোসাইলডাঙ্গা, ৩৭ নং উত্তর মধ্য হালিশহর, ৩৮ নং দক্ষিণ মধ্য হালিশহর, ৩৯ নং দক্ষিণ হালিশহর, ৪০ নং উত্তর পতেঙ্গা ও ৪১ নং দক্ষিণ পতেঙ্গা ওয়ার্ড।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *